চেহারাই যখন বদলে দিচ্ছেন ডেন্টিস্টরা

নিউজ নিউজ

ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:৩৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১, ২০২০

ডেন্টিস্টরা এখন কেবল দাঁতের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই,প্লাস্টিক সার্জনদের মতন পুরোদস্তুর চেহারাই পাল্টে দিচ্ছেন।আমেরিকার বাল্টিমোরের ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জনরা সাফল্যের সাথে ফেসিয়াল টিস্যু, জিহবা,ঠোট, উপর ও নিচের চোয়ালকে ট্রান্সপ্লান্ট করতে সক্ষম হয়েছেন।একে পৃথিবীর সবচেয়ে পূর্নাংগ ফেস ট্রান্সপ্লান্ট সার্জারি হিসাবে ধরা হচ্ছে।

মজার ব্যাপার হল একজন অজ্ঞানামা মৃত ব্যক্তিকে এই ফেস ট্রান্সপ্লান্টের জন্য ডোনার হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে।রিচার্ড লী আজ থেকে ১৫ বছর আগে এক বন্দুক দূর্ঘটনায় মুখমন্ডল বিকৃতির স্বীকার হন।তার চোয়াল নাক মুখ পুরোপুরি বিকৃত হয়ে যায়।নড়াচড়া এমনকি স্বাভাবিক ভাবে মুখ খোলা হা করাও তার জন্য কঠিন হয়ে যায়।বহু বছর অসহনীয় কষ্ট ভোগ করার পর তিনি বাল্টিমোর বিশ্বববিদ্যালয়ের  হাসপাতালে আসেন,সেখানে তার সার্জারি করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

প্রায় ৩৬ ঘন্টা ধরে প্রায় ১৫০ জন বিশেষজ্ঞের তত্বাবধানে সার্জারি সম্পন্ন করা হয়।আর পুরো সার্জারিটির সমন্বয়ে ছিলেন ডাঃ রড্রিগুয়েজ এম ডি এস।তার মতে “আমরা দাত সহ মিড ফেস, ম্যাক্সিলা,ম্যান্ডিবল যথাযথভাবে পুনরাস্থাপনের জন্য সর্বাধুনিক রোবোটিক প্রযুক্তির সহায়তা নিয়েছি।অনেক কঠিন হলেও ফেসিয়াল এক্সপ্রেসন,সেনসরি,মোটর ফাংশনের প্রতিটি নার্ভ যথাযথ ভাবে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে।” সার্জনরা এস্থেটিক্যালি খুব ভালো ফলাফল আশা করছেন।

এই প্রজেক্টে অর্থায়ন করে ইউএসr নেভী।তারা আশা প্রকাশ করছেন ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জনদের এই দক্ষতা যুদ্ধাহত সৈন্যদের ফেস ট্রান্সপ্লান্টে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনবে।

তথ্য সংগ্রহে
শাহ সাইফ জাহান
ইন্টার্ন চিকিৎসক
ঢাকা ডেন্টাল কলেজ হাসপাতাল

আপনার মতামত দিন :