করোনা হটলাইনে বিরক্তিকর কলে কঠোর ব্যবস্থা

নিউজ নিউজ

ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:০৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৫, ২০২০

করোনাভাইরাস সময়কালীন ঘরে বসে যেকোনো ধরনের স্বাস্থ্যসেবা ও এ ভাইরাস সংক্রান্ত তথ্য পেতে হটলাইন সেবা চালু করেছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান-আইইডিসিআরসহ সরকারি বেসরকারি বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান। কিন্তু গ্রাহকরা এ সেবার অপব্যবহার করছেন বলে অভিযোগ করেছেন আইইডিসিআরের হটলাইন সেন্টারে কাজ করা কয়েকজন নারী কর্মকর্তা।

আইইডিসিআরের নারী কর্মকর্তাদের অভিযোগ, গ্রাহকরা নারী কণ্ঠ শুনেই অনাকাঙ্ক্ষিত ও অশোভন বাক্য ব্যবহার করছেন। সম্প্রতি ওই নারী কর্মকর্তাদের একজন ফেসবুকে একটি পোস্ট শেয়ার করেছেন। পরে যা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়।

ওই নারী কর্মকর্তা পোস্টে লিখেছেন, ‘আইইডিসিআরের হটলাইনে কাজ করার পর একটা উপলব্ধি হইছে যে, দেশের বহু মানুষের আসলে কোন কাজই নাই এবং তাদের তেল অনেক বেশি। না হলে মেয়ে কণ্ঠ শুনেই ‘আপনি বিয়ে করেছেন’, ‘আপনার বয়স কত’, ‘যৌবন ফিরে পাবো কিভাবে’, ‘দুলাভাই কি করে’, ‘এই ফোন দিসি এমনিতেই, আপনার সাথে কথা বলার জন্য’, ‘আমাকে ফোন ব্যাক করেন, আপনার সাথে কথা বলতে চাই’ ইত্যাদি ইত্যাদি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আইইডিসিআর’র আরেকজন নারী কর্মী জানান, এ ধরনের বাজে কল বেশি আসে রাতের দিকে। তারা ফোন দিয়ে বলেন, আপনারা রাতে কী খেয়েছেন। তার করোনা হয়নি, সে আমার বাসায় আসবে কি-না। বাসার ঠিকানাও জানতে চান তারা। ফোনের অপরপ্রান্তে নারী কণ্ঠ পেলেই এমন আচরণ করেন তারা।’

তিনি আরও বলেন, ‘কিছু কিছু কল রিসিভ করার পর সারাটা দিন খারাপ যায়। এত নোংরা কথা কিভাবে মানুষ উচ্চারণ করতে পারে তা আমার মাথায় আসে না। কিন্তু প্রত্যুত্তর করার কোনও নিয়ম নেই।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আইইডিসিআর’র অন্য এক নারী কর্মী জানান, ছেলেরা ফোন ধরলে যেমন তেমন, যদি ফোনে মেয়েদের কণ্ঠ শোনে তাহলে ফাজলামোর মাত্রা বেড়ে যায়। কখনো কখনো খুব বাজে গালি দিচ্ছে। দেশের মধ্যে থেকেই এইসব কাজ করছে। এইসব ফালতু কলের জন্য যাদের আসলেই দরকার তারা সবসময় নাম্বার ব্যস্ত পাচ্ছেন। এটার একটা সমাধান দরকার।

এ প্রসঙ্গে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এ এস এম আলমগীর বলেন, ‘আসলে এ ধরনের অপ্রয়োজনীয় ফোন কল আমরা প্রত্যাশা করি না। তাছাড়া এমন সংকটে এমনটা কারোরই কাম্য নয়। আমরা সবার সহযোগিতা চাই। আর যারা এসব কল দিচ্ছেন, তারা এমনটা মোটেও ঠিক করছেন না। আইইডিসিআর থেকে প্রশাসন ও গণমাধ্যকে আমরা  বিষয়টি জানিয়েছি। প্রয়োজনে ট্র্যাক করে আমরা আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হাতে তুলে দেবো। তারা তদন্ত করে কঠোর ব্যবস্থা নিবে।’

এ ব্যাপারে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের সাবেক পরিচালক বিশিষ্ট মনোরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. মোহিত কামাল বলেন বলেন, এমন আচরণ এক ধরণের মানসিক বিকারগ্রস্ততা। সমাজের বখে যাওয়া ছেলেরাই এমন আচরণ বেশি করে। ফলে তারা দেশের এমন সংকটেও তাদের কোন পরিবর্তন হয়নি। বরং তারা স্বাভাবিক কাজকে বাধাগ্রস্ত করছে। এখানে মূলত ব্যক্তিত্বের সমস্যা। নৈতিক শিক্ষার অভাব।

তিনি বলেন, তারা মানসিক বিকারগ্রস্তত হলেও এর কোন চিকিৎসা নেই। প্রয়োজন প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিয়ে আইনের আওতায় আনা। পুলিশের সহায়তা নিয়ে কয়েকজনকে শাস্তি দিয়ে মিডিয়া প্রচার করলে অপরাধের সংখ্যা কমে আসবে। এ সমস্যা সমাধানে সামাজিক ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিতে হবে।

করোনাভাইরাস সময়কালীন সার্বক্ষণিক সেবা মিলবে যে সব হটলাইনে: 

করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা দিলে ১৬২৬৩ ও ৩৩৩ নম্বরে  বিলামূল্যে যোগাযোগ করার পরামর্শ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এরপর তারাই পরীক্ষা-নিরীক্ষা, পরামর্শ বা হাসপাতালে নেয়ার ব্যাপারে নির্দেশনা দেবেন।

এর সাথে সাথে সরকারের জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) হটলাইনে সেবা জন্য যোগাযোগ করতে বলা হচ্ছে। আইইডিসিআরের নম্বরসমূহ, ০১৫৫০০৬৪৯০১, ০১৫৫০০৬৪৯০২, ০১৫৫০০৬৪৯০৩, ০১৫৫০০৬৪৯০৪, ০১৫৫০০৬৪৯০৫, ০১৪০১১৮৪৫৫১, ০১৪০১১৮৪৫৫৪, ০১৪০১১৮৪৫৫৫, ০১৪০১১৮৪৫৫৬, ০১৪০১১৮৪৫৫৯, ০১৪০১১৮৪৫৬০, ০১৪০১১৮৪৫৬৩, ০১৪০১১৮৪৫৬৮, ০১৯২৭৭১১৭৮৪, ০১৯২৭৭১১৭৮৫, ০১৯৩৭০০০০১১ ও ০১৯৩৭১১০০১১। পাঠানো যাবে ফেসবুক মেসেঞ্জারে বার্তা (iedcr, COVID-19 Control Room)।

এছাড়া স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কন্ট্রোল রুমের হটলাইন ০১৯৩৭১১০০১১, ০১৯৩৭০০০৯১১, ০১৯২৭৭১১৭৮৪ ও ০১৯২৭৭১১৭৮৫ এ যোগাযোগের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

টেলি সেবা চালু করেছে ঢাকা শিশু হাসপাতালও (০১৭৩৩৪৫০০৩৯)।

সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে খোলা হয়েছে ২টি কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্র।  আশকোনা হজ্ব ক্যাম্পের নম্বর : ০১৭৬৯০১৩৪২০ ও ০১৭৬৯০১৩৩৫০ ও উত্তরা দিয়াবাড়ি: ০১৭৬৯০১৩০৯০ ও ০১৭৬৯০১৩০৬২।

এদিকে চিকিৎসকদের সংগঠন ফাউন্ডেশন ফর ডক্টরস সেফটি অ্যান্ড রাইটসের (এফডিএসআর) ৫০ জন চিকিৎসক করোনাভাইরাসের স্বাস্থ্য পরামর্শ প্রদান করবেন।পর্যাক্রমে তাঁদের নাম ও ফোন নম্বর: ডা. মো. মশিউর রহমান রিকাবদার (রিজভী) (01720947392 & 0191431918), ডা.ফরিদা ইয়াছমিন শুমি (01773434095), ডা. শামীমুল মৌলা (01712275061), ডা। জামিনুর রশিদ (01676440060), ডা. শায়লা (01717495387) ), ডা. মুবাশির হাসান লিমন (01717529163), ডা. শরিফুল হাসান (01819137415), ডাঃ এজেএম শাহরিয়ার আরিফ (01670990396), ডা. আর. মো. কেএন রাব্বি ওনি (01521580474), ডা.  আশিত মজুমদার (01923285110), ডা. আনামুল হক (01998936767), ডা.  রাহাত আমিন শায়ান (01916372087), ডা.  তাপস তালুকদার (01711359343), ডা. আকিক আনোয়ার (01924658062), ডা. মিজানুর রহমান (01835865871), ডা.  রওশন রোয়ান (01711685080),

ডা. মো. সানুয়ার রহমান (01711982303), ডা.  মণি লাল আইচ লিটু (01705373353, ইএনটি), ডা.  উম্মে হানি (01630733515), ডা. মোশারফ হোসেন (01977217077)  ডা. মো. মাহবুবুল আলম (01712860247),ডা.  ফয়েজ আহমদ খোন্দকার (01711571879), ডা.  ফিনুল ইসলাম (01762242251), ডা. খান আরিফ (01636178110),ডা.  আয়ারিন পারভিন (01724083412), ডা. মেহেদী হাসান (01722758714), ডা. ফারজানা আখি (01972871579), ডা. এমডি। খালিদ সাইফুল্লাহ (01829790991), ডা.  মেহরাজ মোজুমদার (01951048541), ডা. আইয়ুবুর রহমান (01727690222, 01796299975),

ডা.  মো. হাসান শারিয়ার (01733455390), ডা. ফয়জুন্নাহার সুলতানা (01841700433), ডা. মো. আশরাফুল ইসলাম (01717545054), ডা. সৈয়দা জাহান আরা বেগম (01711143470),  ডা. নীহার বানু (01710918603), ডা. মুসারাত সুলতানা সুমি (01711389181), ডা.  নাজমা আক্তার (01842725151), ডা.  হোসনে আরা বেবি (01713008868), ডা. রাফা ইসলাম (01672607178),  ডা. সাব্রিনা ফারাহ মৌরী (01799398581), ডা. কানিজ ফাতেমা মনামি (01713097751),  ডা. নাজনীন সুলতানা (01744534585), ডা. এএসএম শাহরিয়ার (01798674770), ডা. চন্দন কুমার সাহা (01914876363),

ডা.  আরিফ মুর্শেদ খান (01711382480),  ডা. মোস্তাফিজুর রহমান (01972996090), ডা. মালিহা নাওয়ার (01762041078), ডা. রাহাত আনোয়ার চৌধুরী (01716151726), ডা.  মো. ফজলুল কবির পাভেল (01866121427) ও ডা. রশিদুল হক রানা (01916979400)

এছাড়া ২৪ ঘণ্টা ননস্টপ সার্ভিস দিতে আইইডিসিআরের সাথে যুক্ত হয়েছে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি পাবলিক হেলথ ডিপার্টমেন্ট। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির নির্ধারণ করা ডাক্তারদের নামসহ ফোন নম্বরসমূহ: ডা. রেহান আক্তার (01687670413), ডা. নাজির শাহ (01303316018), ডা. নিলয় প্রসাদ (01718452558), মো. আসাদুজ্জামান শুভ (01301880283), ডা. মাহবুবুর রহমান রাজীব (01533987914), ডা. মোহনা খোন্দকার (01953513108)। সাইফা ইসলাম (01883-581829), ডা. আতিয়া রহমান (01772606470), ডা. প্রিয়াঙ্কা মন্ডল (01717020118), ডা. শারমিন হক প্রাইম (01795233354), ডা. শাদমান সাকিব (01675843987), ড. তানভীর রহমান (01518-615052) ও ডা. সাদিয়া আফরিন (01534301925)

আরো সেবা দিবেন ডা. জারা রহমান (01757540162), নওরিন জাহান (01873147497), ডা. ফারজানা ইয়াছমিন (01929422331), ডা. রেফাত পারভেজ অ্যামি (01841716131), ডা. নুসরত নূরী রাইসা (01856877748), ডা. নিগার সুলতানা (01972397197), ডা. নাফিসা রহমান (1627585100), ডা. হিমা (01611108566) এবং ডা. ফারজানা (01534991865)।

করোনা সময়কালীন ঘরে বসেই হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, কিডনি, ব্রেইন ইত্যাদি সমস্যায় বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের কাছ থেকে স্বাস্থ্য পরামর্শ নেওয়ার সুযোগ তৈরি করেছে‘কার্ডিও কেয়ার বাংলাদেশ’। চিকিৎসকদের নাম ও ফোন নম্বর তুলে ধরা হল। তারা হলেন, মেডিসিন বিশেষজ্ঞ প্রফেসর মো. ফজলুল কাদির (০১৪০৭-০৫৯৫৬৩), হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. খালেদ মহসিন (০১৪০৭-০৫৯৫৬৪),  হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. এস এম মোস্তফা জামান (০১৪০৭-০৫৯৫৬৬), মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. মো. ফেরদৌস উর রহমান (০১৪০৭-০৫১৯৫৬৭), হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মো. জাকির হোসেন (০১৪০৭-০৫৯৫৬৮), মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. মারুফ বিন হাবিব (০১৪০৭-০৫৯৫৬৯), হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. সি এম শাহীন কবির (০১৪০৭-০৫৯৫৭০), হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আজফার হোসেন ভূইয়া (০১৪০৭-০৫৯৫৭১), কিডনী বিশেষজ্ঞ ডা. ইউশা এ এফ আনসারী  (০১৪০৭-০৫৯৫৭২), নিউরোলজিস্ট ডা. রুমানা হাবিব  (০১৩১৬-১০০৩৭০), মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. সুজাউদ্দিন তালুকদার (০১৭৪০-৭৯৭৩৫৭) ও অধ্যাপক ব্রিগে. জেনারেল (অব) মামুন মোস্তাফী (০১৫৩১-১৯২০২৬)

প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বা অন্য কোনোভাবে কোনো মিথ্যা বা ভুল তথ্য প্রচার নজরে এলে তথ্য অধিদফতরের সংবাদকক্ষের ফোন নম্বর ৯৫১২২৪৬, ৯৫১৪৯৮৮, ০১৭১৫২৫৫৭৬৫, ০১৭১৬৮০০০০৮ এবং ইমেইল-piddhaka@gmail.com/piddhaka@yahoo.com অথবা ৯৯৯-এ যোগাযোগ করার জন্য সর্বসাধারণের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।

আপনার মতামত দিন :