ইউরোপ-আমেরিকার তুলনায় আমরা অনেক ভালো আছি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিউজ নিউজ

ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:৩৪ পূর্বাহ্ণ, মে ১৪, ২০২০

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণের দিক থেকে ইউরোপ-আমেরিকার তুলনায় বাংলাদেশ অনেক ভালো আছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেন, ‘সারা বিশ্বে কোভিড-১৯ বিভিন্ন পর্যায়ে হানা দিয়েছে। ইউরোপ-আমেরিকায় আপনারা দেখেছেন কী অবস্থা। সেই তুলনায় বাংলাদেশ অনেক ভালো আছে।’

বুধবার (১৩ মে) রাজধানীর মহাখালীর বিসিপিএস মিলনায়তনে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সদ্য নিয়োগ পাওয়া দুই হাজার চিকিৎসকের যোগদান বিষয়ক এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা মোকাবেলায় প্রত্যেকটি জেলায়, উপজেলায় এমনকি ইউনিয়নে আমাদের কমিটি করা আছে। এই কমিটিরি মাধ্যমে সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছ। সেখানে ডিসি সাহেব আছেন, এসপি সাহেব আছেন, জনপ্রতিনিধিরা আছেন। সকলে মিলে এ কাজটি করছেন বিধায় বাংলাদেশ ভালো আছে। আমরা আরো ভালো থাকবো।

কোভিড-১৯ সদ্য নিয়োগ পাওয়া চিকিৎসকদের জন্য আর্শিবাদ বলে মন্তব্য করেন জাহিদ মালেক। এর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, কোভিড-১৯ মোকাবিলা করার জন্যই তাঁরা নিয়োগ পেয়েছেন।

সব রোগীকে চিকিৎসা দেওয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরত যাওয়া মানে একটি অপরাধ। কোভিড-১৯ এবং অন্য সব রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে সদ্য নিয়োগ পাওয়া চিকিৎসকদের প্রতি আহবান জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, আমি হিসেব করে দেখেছি সাতটি বিভাগে গড়ে তিনশ থেতে সাড়ে তিনশ রোগী রয়েছে, যা খুবই কম। এটা ধরে রাখতে হবে । যাতে বাড়তে না পারে। এক্ষেত্রে আপনাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে। এছাড়াও নতুন আরও ১৫টি ল্যাব স্থাপন করা হবে। পর্যায়ক্রমে আরো ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে অফিস ও দোকানপাট খুলে দেয়ায় সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কাও প্রকাশ করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস থেকে সৃষ্ট কোভিড-১৯ রোগ মোকাবিলায় সরকার ৩৯তম বিএসএস (বিশেষ) থেকে দুই হাজার চিকিৎসককে নিয়োগ দিয়ে ৪ মে প্রজ্ঞাপন জারি করে। এরপর গতকাল মঙ্গলবার তাঁরা নিজ নিজ কর্মস্থলে যোগ দিয়েছেন। এর আগে এই দুই হাজার চিকিৎসক নন–ক্যাডার হিসেবে নিয়োগের জন্য সুপারিশ প্রাপ্ত হলেও বিদ্যমান পরিস্থিতিতে দ্রুততার সঙ্গে তাঁদের ক্যাডার পদে নিয়োগ দেওয়া হয়। এ ছাড়া একই উদ্দেশে পাঁচ হাজার ৫৪ জন জ্যেষ্ঠ স্টাফ নার্স নিয়োগ করা হয়েছে।

আপনার মতামত দিন :