ভুল দিয়ে শুরু, ভুল দিয়ে শেষ, জনগন হলো শেষ!

নিউজ নিউজ

ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:১২ অপরাহ্ণ, মে ২৩, ২০২০

জনগণের জানমালের দায়িত্ব সরকারের ঠিক স্বাস্থ্যসেবা টা নিয়ন্ত্রণ করবে স্বাস্থ্য মন্তানালায় এটাই হবার কথা, প্রথম থেকে আমরা দেখছি সম্বনয়হীনতা, যাক চীনে যখন শুরু আমরা ভাবতাম আমরা মুসলিম আমাদের কিছু হবে না, আর এখন ভাবি পাসের বাসার লোক মরবে আমি মরবো না, সত্যি কথা কেউ বলি না আর স্বীকার করতে চাই না, যাক এস আলম গ্রুপের এমডি যখন মারাগেল এখন বুজা উচিত আপনি নিরাপদ না, তাই আসুন নিজের ভুল গুলো স্বীকার করি, দীঘদিন আপনার মন্তানালায় আফজালের মত লোক প্রভাব সৃষ্টি করে বসে আসে এখন ও ঠিকাদারি প্রতিস্টানের ছায়া চলছে সব দুর্নীতি, এসব বন্ধ করতে হবে, বেসরকারি ক্লিনিক চালু রাখতে বলছেন সেটা এখন বন্ধ করতে বলুন কারন আপনার সরকারি হাসপাতালে ই পিপিই ঠিকমত ব্যবহাড় হচ্ছে না সেখানে যারা এখন লাইসেন্স ভয়ে চালু রাখছে তারা করোনা চাষ করছে, রোগী যেমন তথ্য গোপন করছে তেমনি প্রাইভেট ক্লিনিকে র মালিক গন কোন স্টাফ কে সুরক্ষা সামগ্রী দিচ্ছে না, দু একজন দিলে তা হিসাবের মধ্যে না, আসল কথা বেসরকারি ক্লিনিক বেশিই অপ্রয়োজনীয় তা সাধারন জনগনের রক্ত চুষে খায় তার প্রমান করোনা দিলো, আপনার সরকারি হাসপাতালে ই যতটুকু সেবা এখন হচ্ছে বাহিরে ৫ % সেবা পাচ্ছে, তাহলে হিসাব সোজা যে সব ক্লিনিক মানহীন তাদের দরকার কি? বেসরকারি ক্লিনিক যদি আপনি সঠিক ভাবে লাইসেন্স দেন তবে আমি বলতে পারি ৭০ % বন্ধ হয়ে যাবে, আমি চ্যালেন্স দিলাম আপনি সেনাবাহিনীর মাধ্যমে শুধু বেসরকারি ক্লিনিক ও হাসপাতালে জায়গা ও টয়লেট হিসাব নেন, দক্ষ জনবল বা চিকিৎসক বাদ দিলাম দেশে ৩০% কম মানসম্মত প্রতিস্টান পাবেন, যাক আসল কথা হল এই মানসম্মত বেসরকারি ক্লিনিক বা হাসপাতাল ছাড়া সব বন্ধ করে দেন কারন তারা দু একজন রোগী সেবা দিচ্ছে তা করোনা রোগী তাতে আপনার দেশের অবস্থা আরো ভয়াবহ হবে! আমি বার বার বলছি পাএ ফুটো হলে যত পানি উপর দিয়ে দিবেন পানি সব পড়ে যাবে, তাই ব্যবস্থা নিন, বেসরকারি হাসপাতাল বা ক্লিনিক চলবে তা মানসম্মত এবং আপনার নিয়ন্ত্রণে! নইলে আপনার দশ হাজার টেস্টের কোন দাম নাই, আর তিন স্তর জনবল তৈরি করেন বিশেষ করে পরিক্ষা করার জন্য এবং দক্ষ, বয়স্ক রোগী হাসপাতালে যারা অনেক দিন এ সব কাজ করে না তাদের কে দিয়ে আরো আপনার লস হবে কারন সহজেই পজিটিভ হবে সরকারের খরচ বেড়ে যাবে বরং তার টাকা দিয়ে অল্প বয়স বেশি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা আছে এমন মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ দেন, এখন পরিক্ষা করার চেয়ে খুজে দেখতে হবে কারা সুস্থ আছে তাদের নিরাপত্তা দিতে হবে কারন আগের সব সিদ্বান্ত গুলো ভূল ছিল, ভেবে দেখবেন প্লিজ ।

লেখক: তাহেরুল ইসলাম ঠাকুর
সাধারণ সম্পাদক- বঙ্গবন্ধু মেডিকেল টেকনোলজিস্ট পরিষদ,
বরিশাল জেলা।

আপনার মতামত দিন :