বর্তমান প্রেক্ষাপটে দেশের চিকিৎসা খাত নিয়ে বেকার ফার্মাসিস্টের কিছু কথা

নিউজ নিউজ

ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:১১ পূর্বাহ্ণ, জুন ৭, ২০২০

দেশে ডিপ্লোমা ফার্মাসিস্ট ও মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের কাজ করছেন নার্স/Patient care.
অতি দুঃখের সাথে বলতে হয় গত ০৪/০৬/২০২০ ইং তারিখে ‘‘নার্সিং কাউন্সিল’’ কর্তৃক ‘‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়’’ বরাবর ১ টা চিঠি দিয়েছে। চিঠিতে উঠে এসেছে দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে স্বাস্থ্যসেবার প্রকৃত চিত্র।

হাসপাতালের স্লিপ কাটার কাজ করতেছে নার্স’রা, ফার্মেসীর কাজ করতেছে নার্স’রা, প্যাথলোজীর কাজ করতেছে নার্স’রা। ওয়ার্ডবয়ের কাজও নার্স’রা করতেছে।
তার মানে কী! হাসপাতালে স্লিপ কাটার লোক নেই? মেডিসিন স্টোরে ফার্মাসিস্ট নেই? প্যাথলোজীতে ল্যাব টেকনোলজিস্ট নেই? নেই ওয়ার্ডবয়?

এই দেশের স্বাস্থ্যসেবা নীতিনির্ধারক’রা স্বাস্থ্যসেবা খাত বলতে মনে করে শুধু ‘‘ডাক্তার আর নার্স’’। চিকিৎসার যেকোনো সংকট সমাধানে তারা শুধু ‘‘ডাক্তার আর নার্স’’ নিয়োগ দেয়।
বাকীদের কোনো খবর নেই।

বৈশ্বিক মহামারী (covid-19) করোনা’র এই মহাদুর্দিনে ‘‘ফার্মাসিস্ট ও মেডিকেল টেকনোলজিস্ট’’ সংকট নিয়ে গত ৩ মাস যাবৎ পত্র-পত্রিকায় লেখালেখি হচ্ছে, রিপোর্ট হচ্ছে। একের পর এক টকশো হচ্ছে। কার কথা কার কানে যায়?
তাঁরা পড়ে আছে শুধু ‘‘ডাক্তার আর নার্স’’ নিয়োগ নিয়ে!
এখন কি ডাক্তার’রা স্লিপ কাটবে? নার্স’রা রক্ত পরীক্ষা করবে? মেডিসিন দিবে কারা?
ঘর বলতে শুধু ঘরের চাল বুঝলে সেই দেশের অবস্থা এমনই হয়। ঘরের খুঁটি, দরজা, জানালা যাদের লাগে না তাদের চিকিৎসা ব্যবস্থার ফলস্বরুপ দেখা যায় সেই দেশের সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী’র চিকিৎসা দেওয়ার জন্য সরকারী হাসপাতাল পাওয়া যায় না, তাঁর চিকিৎসা নিতে হয় বেসরকারী হাসপাতালে!
হে দেশের মানুষের স্বাস্থ্যসেবার দায়িত্বে বসে থাকা নীতিনির্ধারকগণ, আপনারা দেশের এই ক্লান্তিকালে দেশের চিকিৎসা খাতের মূল সমস্যার সমাধান করেন।আপনারা ডাক্তার-নার্স নিয়োগ দেন, হাসপাতালের যন্ত্রপাতি কয়েকগুণ বেশি দামে কেনেন, কোনো সমস্যা নেই।
তবে সাথে ফার্মাসিস্ট, মেডিকেল টেকনোলজিস্ট সহ স্বাস্থ্য সেক্টরের সকল ফন্ট লাইনের স্বাস্থ্য সেবকদের নিয়োগ দিয়ে দেশের জনগণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করুন।

আর যদি আপনারা ‘‘ডিপ্লোমা ফার্মাসিস্ট ও মেডিকেল টেকনোলজিস্ট’’ নিয়োগ দিতে অক্ষম হন, তাহলে অচিরেই ‘‘ডিপ্লোমা ফার্মাসিস্ট কোর্স ও মেডিকেল টেকনোলজিস্ট কোর্স’’ বন্ধ ঘোষণা করুন।

এস.এম.মাসুদুর রহমান (শুভ)
বেকার ডিপ্লোমা ফার্মাসিস্ট।

আপনার মতামত দিন :