স্বাস্থ্যমন্ত্রী’র কান্ড-জ্ঞানহীন বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানালেন বেকার ফার্মাসিস্ট ‘‘শুভ’’

নিউজ নিউজ

ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:২২ অপরাহ্ণ, জুন ৮, ২০২০

দুঃখ নিয়ে বলতে হয় বাংলাদেশের এমপি-মন্ত্রী’রা ‘‘ফার্মাসিস্ট’’ কি এটা তাঁরা জানে না!
মাননীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মহোদয়, লাইভ প্রোগ্রামে এসে ফার্মাসিস্টদের ‘‘টেকনিশিয়ান বা দোকানের লোক’’ বলে আপনি সমগ্র ফার্মাসিস্টদের অসম্মান করেছেন।

আপনি দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী, আপনার কোনো ভাবেই না বুঝার কারণ নেই ফার্মাসিস্ট আর টেকনিশিয়ানের পার্থক্য। যেখানে আপনার অধীনে স্বাস্থ্যঅধিদপ্তর, ঔষধ ভবন, ফার্মেসী কাউন্সিল, আর সেখানে অনেক সচিব/পরিচালক আছেন, সেখানে ‘‘ফার্মাসিস্ট’’ মানে বুঝার জন্য বেশি পরিশ্রমের দরকার হয় বলে মনে হয় না।
মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়, আপনি অবশ্যই বিশ্ববিদ্যালয় শেষ করেছেন। আপনার তো অন্যান্য বিভাগের সাথে অনেক বেশি পরিচিত থাকার কথা রাজনীতি প্রেক্ষাপটের কারণে। আপনার তো ভালো করে জানা উচিৎ বি.ফার্ম, এম.ফার্ম একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চ পর্যায়ের ডিগ্রি। আপনার সময় থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম সারির সাবজেক্ট ‘‘ফার্মেসী’’। আর সেই সাবজেক্ট এ যারা পড়ে নিশ্চই তারা ‘‘টেকনিশিয়ান’’ নয়। এটা আপনার বুঝা উচিৎ।
আচ্ছা মন্ত্রী মহোদয়, আপনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালীন ‘‘ফার্মেসী বিভাগ’’ সম্পর্কে কি কিছুই জানতেন না?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ফার্মেসী পড়ানো হয় চার থেকে পাঁচ যুগ ধরে, সেই ধারাবাহিকতায় এই পেশার ব্যাপ্তি। তার পরেও যদি বলেন বুঝিনা বা প্রকৃত ধারণা নেই তবে সেটা দুঃখজনক এবং আমাদের জন্য অপমানের।
‘‘ফার্মাসিস্ট আর টেকনিশিয়ান’’ একই পদ নয় এবং এটা নিয়ে দ্বিধার সঞ্চার করা মানে ফার্মাসিস্টদের অবজ্ঞা করা।
একটা দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী কতোটা অজ্ঞ হলে বলতে পারেন যে ‘‘ফার্মাসিস্ট আর টেকনিশিয়ান’’ একই পদ?

একজন ‘‘ফার্মাসিস্ট’’ হিসাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এমন কান্ড-জ্ঞানহীন বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

এস.এম.মাসুদুর রহমান (শুভ)
বেকার ফার্মাসিস্ট।

আপনার মতামত দিন :