কিভাবে বুঝবেন কারো হার্ট অ্যাটাক হচ্ছে?

নিউজ নিউজ

ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৩৮ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২২, ২০২০

ডাঃ ইসমাইল আযহারি :

১. হঠাৎ করে খাবার গ্রহণের কিছুক্ষণ পর বুকের মাঝখানে ব্যাথা হচ্ছে, সাথে শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। হঠাৎ কোনো দুখের সংবাদ, এর পরেও এমন হতে পারে, কোনো কিছু নিয়ে দুঃশ্চিন্তার পরেও এমন হতে পারে,, একটু হাঁটার পরে কিংবা জার্ণি করার পরেও এমন হতে পারে,

২. বুকে ব্যাথার সাথে সাথে বাহুতে, গাঁড়ে, ব্যাথা হচ্ছে, কিংবা পেটের উপরি অংশে ব্যাথা হচ্ছে,

৩। বুক অবরুদ্ধ হয়ে আসতেছে মনে হবে

৪। কপাল, মুখ, গাঁড় ইত্যাদি ঘামিয়ে আসবে, ঘাম বের হবে

৫।অস্বস্তি ভাব লাগবে,

৬। রোগী বলবে, আমার কাছে কেমন কেমন লাগতেছে,
সে তার অবস্থা বর্ণনা করতে পারবেনা,, বুক জালাপোড়া করতেছে, এমন কিছু বলবেনা, বলবে, আমার বুক জাম হয়ে আছে,,,

৭। এমন অবস্থা অনেক সময় থাকবে, এবং শুরু হবার পর কেবল বাড়তে থাকবে, শারিরীক কার্যক্রমের পরই মূলত এমন হবে,,৷ #প্যানিক অ্যাটাক এর সাথে কনিফিউজড হওয়া যাবেনা, প্যানিক অ্যাটাক হচ্ছে মানসিক অবসাদজনিত রোগ, সেখানেও বুকে ব্যাথা হয়, ঘাম বের হয়, তবে তা ২০-২৫ মিনিট পর ভালো হয়ে যায়,
প্যানিক অ্যাটাকে নরমালী বমি কিংবা বমিভাব থাকেনা,
হার্ট অ্যাটাকে nausea and Vomiting থাকে।

৬।এর পর মাথা ঘুরিয়ে পড়ে যাবে,

এমন অবস্থা যদি হয়,, তাদের যদি আগে থেকে হাই প্রেশার থাকে, তাহলে নিশ্চিত বুঝে নিবেন, তার হার্ট অ্যাটাক হয়েছে,
এবং MI এর চিকিৎসা শুরু করে দিন,

আর যদি আগে থেকে Known case of HTN না হয়, তথা পূর্ব থেকে যদি হাইপ্রেশার ডায়াগনোসিস করা না থাকে,
তাহলেও উপরের উপসর্গ দেখলে আর বয়স ৩৫ এর অধিক হলে ECG এর ব্যবস্থা না থাকলে Suspected MI ধরে MI এর চিকিৎসা শুরু করুন।

মোট কথা উপরের উপসর্গ হঠাৎ দেখা দিলে, হার্ট অ্যাটাক এর চিকিৎসা দিন,

বয়স ৪০ এর অধিক হলে অন্তত মাসে একবার ব্লাড প্রেশার চেক করা দরকার, কারণ উচ্চরক্তচাপ থেকেই ৮০% হার্ট অ্যাটাক হয়ে থাকে, আর তারা জানেইনা তাদের যে উচ্চ ররক্তচাপ রয়েছে।

আপনার মতামত দিন :