মৃত্যু ২৪, বেড়েছে সুস্থতার হার

নিউজ নিউজ

ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:২৬ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১০, ২০২০

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সুস্থতার হার বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন চার হাজার ৭৭২ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থের সংখ্যা দাঁড়াল চার লাখ পাঁচ হাজার ৯৬৬ জনে।

এছাড়া শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার শতকরা ৮৩ দশমিক ৮৬ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৩ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১২ দশমিক শূন্য ৬৭ শতাংশ। এ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৬৩ শতাংশ। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে আরও ২৪ জনের।

আজ বুধবার (০৯ ডিসেম্বর) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৪ জনের মৃত্যু। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৯৩০ জনে। এ সময় আরও দুই হাজার ১৫৯ জনের দেহে ভাইরাসটি শনাক্ত করা হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪০টি করোনা পরীক্ষাগারে ১৬ হাজার ৯৭২টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে মোট ১৭ হাজার ৪২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৯ লাখ ১১ হাজার ৬৬৪টি। পরীক্ষায় আরও দুই হাজার ১৫৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছেন। ফলে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল চার লাখ ৮৪ হাজার ১০৪ জনে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, একদিনে মৃত ২৪ জনের মধ্যে পুরুষ ১৮ জন ও নারী ৬ জন। এ পর্যন্ত দেশে করোনায় মোট মৃত ৬ হাজার ৯৩০ জনের মধ্যে পুরুষ ৫ হাজার ২৯৮ (৭৬ দশমিক ৪৫ শতাংশ) ও নারী এক হাজার ৬৩২ জন (২৩ দশমিক ৫৫ শতাংশ)।

বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ২৪ জনের মধ্যে চল্লিশোর্ধ্ব তিনজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব পাঁচ জন এবং ষাটোর্ধ্ব ১৬ জন রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৭, চট্টগ্রামে দুই জন, খুলনায় দুই জন, বরিশালে একজন এবং ময়মনসিংহে দুই জন রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস পৃথিবীজুড়ে মহামারীতে রূপ নেয়। ভাইরাসটিতে বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৬ কোটি ৭৬ লাখের অধিক মানুষ। মৃতের সংখ্যা ১৫ লাখ ৪৬ হাজারের অধিক। তবে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন ৪ কোটি ৩৫ লাখের অধিক মানুষ। বাংলাদেশে প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়ে গত ৮ মার্চ। এরপর ১৮ মার্চ দেশে করোনায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

আপনার মতামত দিন :