করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গে দেশে আইসিইউ শয্যার সংকট

নিউজ নিউজ

ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:১৮ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৬, ২০২০

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় তরঙ্গ শুরু হওয়ার পর থেকে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসা নেওয়ার মতো রোগীর সংখ্যা বেড়ে গেছে। সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এ সংখ্যা ক্রমাগতভাবে বেড়েই চলেছে। এ অবস্থায় সারাদেশের হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ শয্যার তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৭ নভেম্বর রাজধানীতে করোনা রোগীদের জন্য সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে আইসিইউ শয্যা ফাঁকা ছিল ৯০টি। ১৬ দিনের ব্যবধানে সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) ফাঁকা আছে মাত্র ৫১টি।

জানা গেছে, করোনা রোগীদের জন্য সরকারি কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালের আইসিইউতে ১৬টি, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ১০টি, সরকারি কর্মচারী হাসপাতালের ৬টি, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০টি এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ১৬টি শয্যার প্রতিটিতে রোগী ছিলেন। এছাড়া ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২৪টির মধ্যে রোগী ছিল ২০টিতে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, করোনা নিবেদিত সরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে মোট ১১৩টি শয্যা রয়েছে। এর মধ্যে রোগী ভর্তি আছেন ১০২ জন আর ফাঁকা রয়েছে ১১টি শয্যা। আর তালিকাভুক্ত বেসরকারি হাসপাতালে শয্যা রয়েছে ১৭৫টি। এর মধ্যে রোগী ভর্তি আছেন ১৩৫ জন, ফাঁকা রয়েছে ৪০টি।

জানা গেছে, সারা দেশে করোনা রোগীদের জন্য আইসিইউ বেড আছে ৫৭০টি। সোমবার পর্যন্ত রোগী ভর্তি আছেন ৩৩৪ জন, আর শূন্য রয়েছে ২৩৬টি শয্যা।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গ ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে। আইসিইউ ব্যবস্থাপনা তত উন্নত না হওয়ায় ঢাকার বাইরে থেকেও রোগীদের এখানে রেফার করা হচ্ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) ডা. ফরিদ হোসেন মিঞা বলেন, যেসব জায়গায় আইসিইউ বেডের সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো যাবে, সেখানে আইসিইউ বাড়ানোর চেষ্টা চলছে। তবে আইসিইউ শয্যার পাশাপাশি এর জন্য প্রশিক্ষিত জনবল বাড়াতে হবে।

আপনার মতামত দিন :